আমার দৃষ্টিকোণে-০৫

আপনি জানেন কি? যে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর লাগানো গাছে কাঁঠাল ধরেছে!! না জানলে অবশ্যই সমকাল অনলাইন ভিজিট করেন। এই সাংবাদিকদের যদি শাটডাউনের আওতামুক্ত না রাখত তাহলে কি এমন গুরুত্বপূর্ণ কভারেজ আমরা ডেলিভারি পেতাম?? ২৩ বছর আগের লাগানো এই গাছটি কোন জেলায় অবস্থিত? সময় থাকলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন।।

শুনলাম কারাগারে থেকে রফিকুল আমিন ডিটুকে চালু করার জন্য ১২টি মিটিং করেছেন। চিন্তা করেন তাহলে মুফতি আমির হামজা, মামুনুল হক্ব মানে রিসোর্টে ধরা পড়া জান্নাত আরার কথিত স্বামী, পাকিস্তানের জঙ্গি সংঘঠনের সাথে যেন কত মিটিং চালিয়ে যাচ্ছে!! তার খবর কে রাখে?নিশ্চিত সামনে বিপদ আছে আমাদের!! বিএনপির বড় বড় নেতারা আওয়ামী লীগে যোগ দিচ্ছেন!! বলে অতি গোপন খবর জানিয়েছেন কাদের মির্জার বড় ভাই সেতুমন্ত্রী মির্জা ওবায়দুল সাহেব! আমার নাম মাসুদ! সে হিসেবে আমার আসলে আর ভাল হওয়া হবে বলে মনে হয় না, কিন্তু মধ্যরাতে বোট ক্লাবে কট খাওয়া নায়িকা পরীমনি বিরাট ভাল!! তসলিমা নাসরিনের এই গুরুত্বপূর্ন ডেলিভারিটি দেশের প্রায় সকল পত্রিকাই প্রকাশ করেছেন ইল্লা মাশাল্লাহ ।তয় আপনারা এটা জানেন কি? যে বাংলাদেশে উনারা দুজনেই কিন্তু দু-দুবার করে আক্রমণের শিকার হয়েছেন।।

আক্রমণ শেখ সেলিম মামাও করে দিল হেফাজতে ইসলাম কে! তিনি জানিয়েছেন তারা জঙ্গি! কিন্তু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মহোদয় তো বারবার বাসায় ডেকে মিটিং করেন! জঙ্গি হলে এত মিটিং করত মামা?? আপনি শুধুই পুরনো ডায়লগ ডেলিভারি ছাড়েন।। কেন? কেন? কেন??কেন আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা হামলা করলো ব্রা-জিল সমর্থকদের উপর? তার কঠোর বিচার দাবি করছি মাননীয় স্পীকার!!!👌কেন গত ষোল বছরে ১১ লাখ কোঠি টাকা পাচার হয়েছে তা আমি জানতেই চাই না! আপনি কি চানতে চান? তাহলে ৯৯৯ এ কল করে দেখতে পারেন! তবে ৩৩৩ তে কল করলে খাবার পেতে পারেন, আবার নাও পেতে পারেন! শুনলাম গত ১১ দিনে ১৯ লাখেরও বেশি মনুষ্য কল দিছে ৩৩৩ এ কিন্তু খাবার পেয়েছে ৫৯ হাজারের মত মনুষ্য। এত ক্রাইসিসের মধ্যেও আসছে ইদে ঘরমুখো মানব জাতিকে কি দাবায়ে রাখা যাবে? মনে হচ্ছে না!কারন আমরা জাগতে ভালোবাসি, যতবার জেগেছি ততবারই খেয়েছি! কি খেয়েছি তা আপনারা বুঝে নিন।এই ধরেন ১৯৫২ সালে জেগেছিলাম ৫৩ তে দেখি সবকিছুর দাম ডাবল আবার ৬৯/৭১ জাগলাম বাহ! কি চমৎকার তিনগুন বাড়ে গেল!আবার ৮৯তে জাগলাম ঐবারও দু-তিন গুনের কম বাড়েনি! এরপর ফখরুদ্দিন ও মইন কাকা যে জাগিয়ে গেলেন, আর ফিরে তাকাতে হয়নি আমাদের। এখন সেই এক টাকার চাল মাশাল্লাহ ৫৬ টাকা। অবশ্য ইভ্যালিতে ঘুর্নিঝড়ে কিনলে ইশতেহার অনুযায়ী পাওয়া যেত কিন্তু দূদক তো বাগড়া দিয়ে বসল। তারা নাকি ইভ্যালিকে মামলা দিবেই। অবশ্য ইভ্যালির পলিসি আগেও ভালো লাগেনি, এখনো ভালো লাগছে না। নির্মলেন্দু গুনের ব্যাপারে এভাবে অনেকেই বলেন ” জানেনা ধুনপুন, নির্মলেন্দুগুন”। সুতরাং ধুনপুন বাদ দিন ধান্দাবাজ ইভ্যালি।

আপাতত “লাকুম দিনুকুম ওয়ালিয়াদিন” যার যার ঘরে থাকুন। বাজে চিন্তা বাদদিয়ে আশেপাশের মানুষের চিন্তা করুন। পারলে Noor Mohammad ভাইদের ১০ কেজি চালের প্রজেক্টের ছবি শেয়ার করুন ও বাস্তবায়ন করুন।

বিঃদ্র-আমার অনেক পরিচিতজনই অসুস্থ । মহান আল্লাহ উত্তম হেফাজতকারী। সুতরাং চিন্তা করুন, তবে হতাশ হয়ে পরবেন না। আসুন দূআ করি, হেআল্লাহ আপনার বিশেষ রহমতের বদৌলতে আমাদের সুস্থতার নেয়ামত দান করুন – আমিন।

০৭/০৭/২১

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *